Technology - টেক গাইডOthers

নেট থেকে টাকা আয় করার কয়েকটি সহজ উপায়

ইন্টারনেট থেকে টাকা আয়

নেট থেকে টাকা আয়/Earn money from internet
নেট থেকে টাকা আয়/Earn money from internet

বেকার সমস্যা বাংলাদেশের অনেক পুরনো একটি সমস্যা।পড়ালেখা শেষে চাকরি পাওয়ার জন্য আমাদেরকে জুতা ক্ষয় করতে হয়।করোনা মহামারীতে এই সমস্যা আরও প্রকট আকার ধারণ করেছে।এমন পরিস্থিতিতে নেট থেকে টাকা আয় বা ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় আমাদের জন্য একটা ভালো অপশন হতে পারে।

বর্তমান যুগ তথ্য প্রযুক্তির যুগ।আমাদের চাহিদা অনুযায়ী প্রায় সকল তথ্যই এখন আমাদের হাতে থাকা স্মার্টফোনেই পাওয়া যায়।অনেকেই মনে করেন যে নেট থেকে টাকা আয় করতে হলে

অবশ্যই একটি ভালো মানের কম্পিউটার থাকতে হবে।ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় করার জন্য আমাদের কি কি উপকরণ দরকার হবে তা নির্ভর করে আমরা কিভাবে ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় করব তার উপর।সাধারণত নেট থেকে টাকা আয় করার জন্য হাতিয়ার হিসেবে প্রাথমিকভাবে একটি স্মার্টফোন এবং নেট কানেকশন এ দুটিই যথেষ্ট।অনলাইন থেকে টাকা আয় করার অনেকগুলো উপায় রয়েছে যেমন;নিজের ওয়েবসাইটে লেখালিখি,অন্যের ব্লগ লিখে দেওয়া, ইউটিউব হতে আয়,অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে আয়,সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে আয়,আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে আয় ইত্যাদি।

প্রথমে আপনাকে বুঝে নিতে হবে কোন ধরনের কাজ করতে আপনি সাচ্ছন্দ্য বোধ করবেন অথবা কোন কাজে আপনার বিশেষ স্ক্রিল রয়েছে।এবার আপনার প্রথম কাজ হলো আপনার পছন্দের সেক্টরের জন্য প্রয়োজনীয় স্কিল কে আরো উন্নত করা।যদিও এ কাজগুলো স্বাধীন কাজ তারপরও এই কাজগুলোতে যত বেশি সময় দিবেন তত বেশি আয় বাড়াতে পারবেন।

অন্যান্য পেশার চেয়ে নেট থেকে টাকা আয় তুলনামূলক সহজ কেন?

  • এটি একটি মুক্ত বা স্বাধীন পেশা
  • অনলাইনে করা কাজের পাশাপাশি অন্যান্য পেশায় নিয়োজিত থেকে বাড়তি টাকা আয় করা যায়।
  • পড়ালেখার পাশাপাশি এসব কাজ করা যায়,ফলের পরিবার থেকে বাড়তি টাকা নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না।
  • কোন বাড়তি মূলধন বিনিয়োগ করতে হয় না।
  • নিজের সুবিধামতো সময়কে এই কাজের জন্য বেছে নেয়া যায়।
  • কাজ করতে করতে স্কিল ডেভেলপ হয়।

চলুন জেনে নেয়া যাক নেট থেকে টাকা আয় করার বা ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় করার কয়েকটি জনপ্রিয় উপায় :

1.ইউটিউব এর মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয়:

ইউটিউব নেট থেকে টাকা আয় করার মোটামুটি একটি সহজ পদ্ধতি।ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার জন্য প্রথমেই আপনাকে একটি ইউটিউব একাউন্ট/চ্যানেল খুলতে হবে।এর পর নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে হবে।ইউটিউব এর কিছু নিয়ম আছে যেগুলো আপনাকে পূর্ণ করতে হবে।যেমন;এক হাজার সাবস্ক্রাইবার এবং চার হাজার ঘন্টা ওয়াচ-টাইম পূর্ণ করার পর আপনি আপনার ভিডিওতে এড দেওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন।এই এড দেওয়ার মাধ্যমেই আপনি ইউটিউব থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

2.ফেসবুক,টুইটার,ইনস্টাগ্রাম- এর মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয়:

ফেসবুক,টুইটার,ইনস্টাগ্রাম- এর মত সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে আমরা শুধু বিনোদনের জন্য প্রচুর সময় নষ্ট করে থাকি।কিন্তু আমরা চাইলেই বিনোদনের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াগুলো থেকে বাড়তি টাকা আয় করতে পারি।বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়াগুলোই সবথেকে বড় মার্কেটপ্লেস।বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর উপর অনলাইনে অনেকগুলো কোর্স রয়েছে।ফেসবুক পেজ বুস্টিং,বিজনেস প্রমোশন বা নিজস্ব প্রোডাক্ট এর ব্যাবসা করেও সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয় করা যায়।

3.ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয়:

ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয় করার বিভিন্ন উপায় রয়েছে।ওয়েবসাইট তৈরি করে দিয়ে এবং তা রেডি করে দেয়ার মাধ্যমে আপনি সরাসরি টাকা আয় করতে পারেন।তাছাড়া নিজের সাইটে এফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয় করা সম্ভব।ওয়েবসাইটের মাধ্যমে স্পন্সর পোস্ট করেও টাকা আয় করা যায়।নিজের ওয়েবসাইটে আপনার যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর উপর বিশেষ দক্ষতা দেখে জাগে বিভিন্ন পণ্য ও সেবা বিক্রি করেও টাকা আয় করতে পারবেন।আপনার যদি কোন বিষয়ে বিশেষ দক্ষতা থেকে থাকে তবে ওই বিষয়ে বিভিন্ন কোর্স ওয়েবসাইটে বিক্রি টাকা আয় করতে পারেন।ওয়েবসাইট থেকে টাকা আয় করার সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম হল Google AdSense-এর মত বিজ্ঞাপন দাতা সংস্থার মাধ্যমে ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দিয়ে টাকা আয় করা।

4.আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয় :

আপনি হতাস,কারন আপনার কোন বিশেষ বিষয়ে স্কিল আছে কিন্তু বাংলাদেশের চাকরির বাজার খারাপ হওয়ায় পছন্দ মতো কাজ পাচ্ছেনা।এক্ষেত্রে আউটসোর্সিংই হতে পারে আপনার জন্য সমাধান।ইন্টারনেটের এই দুনিয়ায় চাকরির বাজার সবার জন্য উন্মুক্ত।এর জন্য প্রথমেই আপনাকে ফ্রিল্যান্সার ডট কম,ফাইবার,আপওয়ার্ক এর মত আউটসোর্সিং মার্কেটপ্লেসে একাউন্ট খুলেনিতে হবে।এরপর আপনাকে চাহিদা মতো কাজ খুঁজে নিতে হবে।

5.অ্যাপ ডেভলপের মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয় :

আপনার যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর উপর বিশেষ দক্ষতা থেকে থাকে তবে নেট থেকে টাকা আয় করা আপনার জন্য খুবই সহজ ব্যাপার হবে।নিজের অ্যাপ তৈরি করে তা প্লে স্টোরে আপলোড করার মাধ্যমে অথবা অন্যকে টাকার বিনিময় অ্যাপ তৈরি করে দেয়ার মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয় করা সম্ভব।

6.ছবি বিক্রি করে নেট থেকে টাকা আয় :

আপনি যদি ভালো ছবি তুলতে পারেন তবে আপনিও নেট থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।এর জন্য আপনাকে শাটারস্টক,ফটোবাকেট,আইস্টকফটো এর মত ছবি বিক্রির সাইটগুলোতে একাউন্ট খুলতে হবে।এর পর সাইটগুলোর নিজস্ব নিয়মকানুন গুলো মেন্টেইন করে ক্যাটাগরি অনুযায়ী আপনার ছবিগুলো বিক্রয়ের জন্য আপলোড করতে পারবেন।

7.নেট থেকে টাকা আয় করার অন্যান্য উপায় সমূহ :

এছাড়াও আরো কিছু উপায়ে নেট থেকে টাকা আয় করা যায়।যেমন;ইন্টারনেট এ বিভিন্ন সার্ভেতে অংশ নিয়ে,বিভিন্ন বিজ্ঞাপন দেখার মাধ্যমে,টাকার বিনিময়ে কনটেন্ট শেয়ারের মাধ্যমে এবং অ্যাপস শেয়ার এর মাধ্যমেও টাকা আয় করা যায়।

ইন্টারনেট থেকে আয় করা টাকা উত্তলন করার উপায় :

নেট থেকে টাকা আয় করার পর কিভাবে টাকা হাতে পাবেন সেই প্রশ্ন নিশ্চয়ই আপনার মনে জেগেছে।এক্ষেত্রে আপনি কোন মাধ্যমে নেট থেকে টাকা আয় করবেন তার উপরে নির্ভর করে কিভাবে আপনি টাকা হাতে পাবে।বাংলাদেশের যেকোন ব্যাংক এ একটি সেভিং একাউন্ট খুলতে হবে আপনাকে।এর পর পেমেন্ট পাওয়ার জন্য পেওনিয়ার অথবা পেপাল একাউন্ট খুলতে হবে।এগুলোই টাকা হাতে পাওয়ার মুল হাতিয়ার।এর পরে ধাপগুলি তাদের ইন্সট্রাকশন পেজেই পেয়ে যাবেন।
আমরা অনেকেই ইন্টারনেটকে শুধু বিনোদনের মাধ্যম হিসেবেই ব্যবহার করে থাকি।কিন্তু আমরা চাইলেই কিছু সময় এবং শ্রমকে পূঁজি হিসেবে কাজে লাগিয়ে ইন্টারনেট থেকে কিছু বাড়তি টাকা আয় করতে পারি।এ ছাড়া বিকাশ এজেন্ট ব্যাবসা সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *